Breaking News

বুড়ালের একটি সভা থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে সরাসরি আক্রমণ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী-র

বুড়ালের একটি সভা থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে সরাসরি আক্রমণ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী-র

বুড়ালের একটি সভা থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে সরাসরি আক্রমণ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী-র

নিজস্ব প্রতিবেদন, তৃণমূলের পুরনো নেতাকর্মীরা বাম আমলে যে সম্মান পেতেন, তৃণমূলের আমলে সেই সম্মান পাচ্ছেন না। যেই সিঁড়ি বেয়ে মমতা ব্যানার্জি উঠেছিলেন, সেই সিঁড়ি ফেলে দেওয়াই মমতা ব্যানার্জির স্বভাব। শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে তৈরি হওয়া জল্পনা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রাজ্যের শাসক শিবিরকে ঠিক এই ভাষাতেই নিশানা করলেন বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী।

শুক্রবার বিকেলে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং থানার বুড়ালে ২৬শে নভেম্বর দেশব্যাপী ধর্মঘটের সমর্থনে এক কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসেন সুজন চক্রবর্তী। এই সভায় যোগ দিয়ে তিনি দাবি করেন, ২০২১ এর নির্বাচনে বাংলার মানুষ বিকল্প খুঁজছে, সেই বিকল্প হচ্ছে তৃণমূল বিজেপি বিরোধী মহাজোট। একদিকে মানুষ যেমন তৃণমূলকে বাতিল করবে তেমনই তৃণমূল ছেড়ে আশা নেতাদের নিয়ে তৈরি বিজেপিকেও মানুষ বাতিল করবে বলে দাবি করেন সুজন চক্রবর্তী। লড়াইয়ের ময়দানে ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে মানুষের দাবি নিয়ে তারা যে ক্রমাগত লড়াই চালিয়ে যাবেন এমনটাই দাবি করেন বর্ষীয়ান এই বাম নেতা।

অন্যদিকে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে রণনীতি তৈরি করতে কেন্দ্রীয় নেতাদের আনাগোনা প্রসঙ্গে তাঁর দাবি, “তৃণমূল বিজেপি দুই দলের সব ক্ষেত্রেই রাজ্যের নেতারা এখন ব্রাত্য। একদিকে পিসি ভাইপোর কোম্পানির টেন্ডার নিয়েছে পিকে। অন্যদিকে বিজেপির দিল্লির নেতারা পরিচালনা করছে রাজ্যের নেতাদের, যারা বাংলার সংস্কৃতি বোঝেন না।”এসব নেতাদের মানুষ ছুড়ে ফেলবে বলেও দাবি করেন তিনি। সবমিলিয়ে বুড়ালের সভায় দাঁড়িয়ে একের পর এক ইস্যুতে রাজ্য ও কেন্দ্রের শাসক শিবিরকে নিশানা করেন সিপিএমের এই দাপুটে নেতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *