Breaking News

দ্বারিবেড়িয়াতে কুনাল ও শতাব্দীর সভা, রাজনৈতিক উত্তাপ ঊর্ধ্বমুখী

দ্বারিবেড়িয়াতে কুনাল ও শতাব্দীর সভা, রাজনৈতিক উত্তাপ ঊর্ধ্বমুখী

দ্বারিবেড়িয়াতে কুনাল ও শতাব্দীর সভা, রাজনৈতিক উত্তাপ ঊর্ধ্বমুখী

নিজস্ব প্রতিবেদন, ২০২১-এর নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা জুড়ে রাজনৈতিক উত্তাপ ততই জোরালো হচ্ছে। এরইমধ্যে শুভেন্দু অধিকারী নিজের বাড়িতে পদ্ম ফুল ফোটানোর কথাও বলেছেন প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে। এর মাঝে বুধবার শুভেন্দু অধিকারীর নিজের জেলা পূর্ব মেদিনীপুরে মহিষাদল বিধানসভার আয়োজনে দ্বাড়িবেড়িয়াতে এক বিশাল জনসভা। এইদিন সভায় উপস্থিত তৃণমূলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ, সাংসদ শতাব্দী রায়,জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি, মহিষাদল ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা মহিষাদল পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি তিলক চক্রবর্তী, হলদিয়া উন্নয়ন ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অশোক সামন্ত সহ জেলা ও ব্লকের অন্যান্য নেতৃত্বরা।

বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আজকের সভায় বিশেষ রাজনৈতিক তাৎপর্যপূর্ণ। গত ২রা জানুয়ারি একই মাঠে সভা করেছিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী, সাথে ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় সহ অন্যান্যরা। এদিন শুভেন্দু অধিকারীকে কটাক্ষ ও চ্যালেঞ্জ ছোঁড়েন রাজ্য তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। পাশাপাশি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগে তৃতীয় বারের জন্য আবার বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবেন বলে জানান সাংসদ শতাব্দী রায়। পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারীকে গাদ্দার বলে আখ্যা দিলেন মুখপাত্র কুনাল ঘোষ। অন্যদিকে নন্দীগ্রাম আন্দোলন নিয়ে ক্রেডিট নিচ্ছে শুভেন্দু অধিকারী, সেই প্রসঙ্গ টেনে তোপ দাগলেন তিনি। এদিন সভামঞ্চে হাজির করে নন্দীগ্রাম আন্দোলনের এক নেতৃত্বকে এদিন ঐ মঞ্চে গান গেয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন ওই তৃণমূল কর্মী।

পাশাপাশি কুনাল ঘোষ বলেন, শুভেন্দু অধিকারী সারা জেলাজুড়ে যেখানে দাঁড়াবে সেখানেই তাকে হারানো হবে, এমনটাই হুংকার দেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ। যখন রেলমন্ত্রী ছিলেন তখন তার একাধিক সাফল্যের কথা তুললেন কুনাল ঘোষ। অন্যদিকে একই সুর শোনা গেল সংসদ শতাব্দি রায়ের মুখ থেকে। তিনি বলেন, আগামী দিনে বাংলাকে আরো উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে তৃতীয়বারের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসাতে হবে। এক কথায় বলা যায় সারা রাজ্যের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ কারীদের নজর এখন শুধু এ রাজ্যের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা জুড়ে এটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *