Breaking News

'রাস্তা দিয়ে গড়িয়েছে অনেক চাকা, তবুও মেলেনি বাড়ি', ৪ বছরেও পুরণ হয়নি প্রতিশ্রুতি

‘রাস্তা দিয়ে গড়িয়েছে অনেক চাকা, তবুও মেলেনি বাড়ি’, ৪ বছরেও পুরণ হয়নি প্রতিশ্রুতি

‘রাস্তা দিয়ে গড়িয়েছে অনেক চাকা, তবুও মেলেনি বাড়ি’, ৪ বছরেও পুরণ হয়নি প্রতিশ্রুতি

নিজস্ব প্রতিবেদন, ৪ বছরেও পুরণ হয়নি প্রতিশ্রুতি! পুনর্বাসন না পেয়ে কনকনে শীতের রাতে রাজ্য সড়কের নিচে দিন কাটাচ্ছে ৭ আদিবাসী পরিবার। এমনই ছবি উঠে এলো পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়কের নিচে মনসাতলা চাতাল এলাকায় ৭ বসবাস কারী আদিবাসী পরিবারের। সাথে রয়েছে ভোটার কার্ড, আধার কার্ড। আদিবাসী জবা সরেন, রুপালি মূর্মু দের এখন একটাই দাবি, পাঁচ বছর পার হলেও মিললো না বাড়ি। তাদের একটা বাড়ি দেওয়া হোক। বাড়ির আশায় দিন গুনছেন তাঁরা। তাঁদের অভিযোগ, বছর চারেক আগে ঘাটাল চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়ক সম্প্রসারণের সময় চন্দ্রকোনা ১ নম্বর ব্লকের দিয়াসা গ্রামের ৭ আদিবাসী পরিবারকে উচ্ছেদ করা হয়। আর সেই সময় স্থানীয় প্রশাসন থেকে শুরু করে, পূর্ত দফতরের কর্মীরা তাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তাদের দেওয়া হবে বাড়ি এবং সরকারি জায়গা। কিন্তু রাস্তা সম্প্রসারণের পর বেশ কয়েক বছর গড়িয়েছে। রাস্তা দিয়ে গড়িয়েছে অনেক চাকা, তবুও মেলেনি বাড়ি।

এই ঘটনার কথা স্বীকার করেছে স্থানীয় প্রশাসন। আর এতেই শুরু হয়েছে জোর রাজনৈতিক জল্পনা। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, “তৃণমূলের নেতারা নিজেদের পকেট ভরতে ব্যস্ত, তাই তারা এই আদিবাসী পরিবারগুলির কথা ভাবেনি। আমরা ক্ষমতায় আসলে ওদের বাড়ির ব্যবস্থা করব”। ঘটনার কথা স্বীকার করে চন্দ্রকোনার তৃণমূল বিধায়ক ছায়া দোলই বলেন, “দ্রুত ওদের বাড়ির ব্যাবস্থা করা হবে”। চন্দ্রকোনা ১ নম্বর ব্লকের বিডিও রথীন্দ্রনাথ অধিকারী বলেন, “বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে”। সামনেই ২০২১ নির্বাচন, তাই দেখার ওই ৭ পরিবারের কবে মাথা উপর ছাদ হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *