Breaking News

নাম না করে মানস ভূঁইয়াকে রাবণ বলে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

নাম না করে মানস ভূঁইয়াকে রাবণ বলে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

নাম না করে মানস ভূঁইয়াকে রাবণ বলে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর

নিজস্ব প্রতিবেদন, সবংয়ে বিজেপির সভা থেকে নাম না করে মানস ভূঁইয়াকে রাবণ বলে কটাক্ষ শুভেন্দু অধিকারীর। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় বিজেপির জনসভা করে এসেছেন শুভেন্দু অধিকারী। এবার সবংয়ে বিজেপির প্রথম জনসভায় এসে, মানস ভুঁইয়াকে রাবণ বলে কটাক্ষ করলেন শুভেন্দু। তৃণমূল সরকারকে কটাক্ষ করে শুভেন্দু বলেন, “আমি বরাবরই বলে এসেছি অতীত যে ভুলে যায়,তার ভবিষ্যত ভালো হতে পারে না। তাই শুভেন্দু অধিকারী এই কোম্পানি থেকে বেরিয়ে এসেছে, ফুটো নৌকা থেকে বেরিয়ে এসেছে, যে ফুটো নৌকায় জল ঢুকতে শুরু করেছে”।

অন্যদিকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে বলেন, “তোলাবাজ ভাইপো বলছিলেন শুভেন্দু অধিকারী যদি এক বাপের ব্যাটা হয় তাহলে আঞ্চলিক দল করল না কেন? আঞ্চলিক দক করে,আমি যদি কিছু ভোট কাটতাম, তাহলে তোমাদের সুবিধা হতো। আমি সেই ফাঁদে পা দেয়নি।আমার পরে আমার ভাইপোও তো আঞ্চলিক দলের মালিক। তাই আমি আঞ্চলিক দল করিনি, আমি ভারতীয় জনতা পার্টির পৃথিবীর সর্ববৃহৎ দল করছি। অটলজির জন্মদিনে ঘোষণা করলেন, কৃষক সম্মান নিধি যোজনা, এখন বলছেন পিএম কিষান যোজনা চালু করব, আপনারা শুনে রাখুন আপনাদে কৃষাণ মোর্চা আমাদের নামতে হবে,আপনাদের ১৪০০০ হাজার টাকা ফেরত দিতে হবে। যেটা পশ্চিমবঙ্গের তিয়াত্তর লক্ষ্য কৃষক বঞ্চিত হয়েছে। আজকে কেন্দ্র সরকারের দেওয়া সব কর্মসূচির নাম পাল্টাচ্ছে।”

২০২১-র ভোটে সবংয়ে অন্তরা ভট্টাচার্য্য- ভারতী ঘোষ- শুভেন্দু অধিকারী পদ্ম ফুল ফোটাবে। সবং-এর তৃণমূল নেতার উদ্যেশে বলেন, “মন্ডল সভাপতিদের বলছি আপনাদের কেউ মারপিট করলে যোগাযোগ করবেন। এই ডাকাত লালুর মতো লোককে আজকে সিকিউরিটি দিয়ে এলাকায় তাণ্ডব করাচ্ছে। আমি জানি লক্ষ্মণ শেঠেরদের, কিষান জি’দের, সোজা করা শুভেন্দু সঙ্গে ভারতী ঘোষ। আমরা জানি কোন অসুখে কোন ওষুধ দিতে হয়। আমরা শুধু বলব নির্বাচন বিধিটা শুরু হতে দেন সিআরপি দিয়ে ভোট হবে নিজের ভোট নিজে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *