Breaking News

"আর নয় অন্যায়" কর্মসূচিকে সামনে রেখে কেশপুরে 'গৃহ-সম্পর্ক অভিযান' শুরু করল বিজেপি

“আর নয় অন্যায়” কর্মসূচিকে সামনে রেখে কেশপুরে ‘গৃহ-সম্পর্ক অভিযান’ শুরু করল বিজেপি

“আর নয় অন্যায়” কর্মসূচিকে সামনে রেখে কেশপুরে ‘গৃহ-সম্পর্ক অভিযান’ শুরু করল বিজেপি

নিজস্ব প্রতিবেদন, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় বিজেপির ঘাটাল সাংগঠনিক জেলা জুড়ে শুরু হচ্ছে বিজেপির গৃহ-সম্পর্ক অভিযান কর্মসূচি। শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশপুর ব্লকের আগর, খেতুয়া ও সাতডুবি – গ্রামে গ্রামে গিয়ে এবার ‘গৃহ-সম্পর্ক অভিযান’ কর্মসূচি সারল বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। এদিন এই গৃহ-সম্পর্ক অভিযান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য ও জেলা বিজেপির নেতৃত্ববৃন্দরা।

পাশাপাশি এদিন খেতুয়া ও নয়াপাড়া গ্রামে গিয়ে সেখানকার মানুষজনদের অভাব-অভিযোগ ও সমস্যার কথা শুনেন বিজেপি নেতারা এবং সেগুলো সমাধানের আশ্বাস দিয়ে তাদের হাতে ‘আর নয় অন্যায়’ ও তৃণমূল কংগ্রেসের জনবিরোধী নীতির লিফলেট তুলে দেওয়া হয়। এদিনের এই গৃহ-সম্পর্ক অভিযান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটির সদস্য তথা ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার পর্যবেক্ষক নীলাঞ্জন অধিকারী, জেলা বিজেপির সহ সভাপতি অজয় কৃষ্ণ প্রধান ও কেশপুর উত্তর মন্ডলের সভাপতি প্রবীণ হালদার সহ একাধিক নেতৃত্ব।

গৃহ সম্পর্ক অভিযান এসে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব নীলাঞ্জন অধিকারী বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেস একের পর এক যে জনবিরোধী নীতিগুলি আনছে সেগুলো আমরা মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে তাদের বোঝানোর চেষ্টা করছি। যাতে এবারের নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস নামক এই করোনা ভাইরাস দলটি ক্ষমতায় যাতে না আসতে পারে তার জন্য আপনারা নিজের মূল্যবান ভোটটি পদ্ম ফুলে দেবেন। সেই সঙ্গে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষদের বোঝাচ্ছি যাতে বাংলায় একটা উন্নয়নের সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়। সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলতে গিয়ে আমি দেখছি তৃণমূল সরকারের উপর প্রচুর মানুষের ক্ষোভ বিক্ষোভ আছে। মোদি সরকারের সাফল্যের কথা জানতে চাইলে, সাধারণ মানুষ বলেন তিনি তো কেন্দ্র সরকারের রয়েছেন অনেক উন্নয়ন করেছেন কিন্তু এবার আমাদের রাজ্য দরকার। সেই সঙ্গে সাধারণ মানুষের উৎসাহ এবং উদ্দীপনা রয়েছে চোখে পড়ার মতো”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *