Breaking News

চন্দ্রকোনায় শুভেন্দু অধিকারীর সভার পাল্টা তৃণমূল - কংগ্রেসের সভা, জনসভা ঘিরে কর্মীদের ভিড় নজরকাড়া

চন্দ্রকোনায় শুভেন্দু অধিকারীর সভার পাল্টা তৃণমূল – কংগ্রেসের সভা, জনসভা ঘিরে কর্মীদের ভিড় নজরকাড়া

চন্দ্রকোনায় শুভেন্দু অধিকারীর সভার পাল্টা তৃণমূল – কংগ্রেসের সভা, জনসভা ঘিরে কর্মীদের ভিড় নজরকাড়া

নিজস্ব প্রতিবেদন, চন্দ্রকোনায় শুভেন্দু অধিকারীর সভার পাল্টা সভা করল তৃণমূল কংগ্রেস। গত ১৬ তারিখ চন্দ্রকোনা পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড খেজুরডাঙ্গা মাঠে জনসভা করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, মঙ্গলবার সেই একই মাঠে জনসভা করল তৃণমূল কংগ্রেস। এদিনের জনসভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য নেতৃত্ব কুনাল ঘোষ, সুজাতা মন্ডল খাঁন, প্রসূন ব্যানার্জী সহ একঝাঁক জেলা নেতৃত্ব। শুভেন্দু অধিকারীর পাল্টা সভা হিসাবে এদিন খেজুরডাঙ্গা মাঠে বিপুল জনসমাগম ও কর্মীসমর্থকদের উচ্ছাস ছিল নজরকাড়া। প্রসূন ব্যানার্জী থেকে সুজাতা মন্ডল, কুনাল ঘোষের আগাগোড়া নিশানায় ছিল দলত্যাগ করে বিজেপিতে যাওয়া শুভেন্দু অধিকারী। এদিনের সভার বক্তাদের বক্তব্যর অধিকাংশ জুড়েই ছিল সদ্য দলত্যাগ করে বিজেপিতে যাওয়া তৃণমূল নেতারা, আর মুল নিশানায় শুভেন্দু অধিকারী।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে সুজাতা মন্ডল খাঁন ও কুনাল ঘোষ একযোগে কটুক্তি করেন শোভন চ্যাটার্জী ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কুনাল ঘোষ বলেন, “বিজেপি শোভনদাকে কোলকাতার পর্যবেক্ষক করেছে, কিন্তু শোভন-বৈশাখীর দুবছর ধরে তো নিজেদের পর্যবেক্ষন করতেই সময় পেরিয়ে গেল”। এদিন দলীয় নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্য কুনালের বার্তা, “আমাদের মধ্যে যার যার ক্ষোভ, অভিমান, রাগ আছে, তা দুরে রেখে আগামী চারমাস এখন শুধু জবাব দেওয়ার পালা। তৃতীয় বারের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসাতে হবে একজোট হয়ে”।শুভেন্দু অধিকারীর পাল্টা জনসভা ঘিরে কর্মীদের ভিড় দেখে স্বস্তিতে চন্দ্রকোনার পাশাপাশি জেলা নেতৃত্বও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *