Breaking News

তৃণমূলের দলীয় পার্টি অফিসকে কন্ডাক্টরের অফিসে পরিণত করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল

তৃণমূলের দলীয় পার্টি অফিসকে কন্ডাক্টরের অফিসে পরিণত করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল

তৃণমূলের দলীয় পার্টি অফিসকে কন্ডাক্টরের অফিসে পরিণত করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল

নিজস্ব প্রতিবেদন, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর ২ নং ব্লকের পঁচেট অঞ্চল গোবদ্ধনপুর এলাকায় তৃনমূল কংগ্রেসের পাটি অফিসকে ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে। সেই পার্টি অফিস কন্ডাক্টরের কাজের অফিস হয়ে গিয়েছে। পঁচেট অঞ্চল তৃনমূল কংগ্রেসর সভাপতি এবং তৃনমূল নেতাদের অভিযোগ, সামনেই বিধানসভা নির্বাচন কিন্তু পার্টি অফিস কনট্রাক্টরকে ভাড়া দেওয়ার ফলে তাঁরা এলাকায় কোনো মিটিং বা গোপনীয় বৈঠক করতে পারছেন না। এছাড়া এদের আরও অভিযোগ, এই পার্টি অফিস বিগত ছয় মাস ধরে ভাড়া দিয়ে রাখা হয়েছে ওই কনট্রাক্টরকে। কিন্তু ছয় মাস ধরে এলাকায় কোনো মিটিং বা বৈঠক হচ্ছে না বলে জানান পঁচেট অঞ্চল তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি নিলমাধব দাস অধিকারী ও পটাশপুর ২ তৃনমূল নেতা দূর্গপদ পাহাড়ি।

যদিও এই সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে চন্দন সাউ পটাশপুর ২ নং ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা প্রাপ্তন ব্লক তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি বললেন, যাতে রাস্তার কাজ তাড়াতাড়ি হয় সেই জন্য কন্ডাক্টরের জিনিসপত্র ও লোকজন থাকার জন্য বিনা মূল্যে এই পার্টি অফিসটি দেওয়া হয়েছে। এর জন্য কোনও ভাড়া বা কোনো পয়সা নেওয়া হয় না। পার্টি অফিসের সামনে যেহেতু ফাঁকা গ্রাউন্ড রয়েছে তাই ওখানে কন্ট্রাক্টরি কাজের জিনিসপত্র রাখতে সুবিধা হবে এবং কাজও তাড়াতাড়ি হবে বলে মনে করে পার্টি অফিসটি বিনা পয়সায় কন্ডাক্টরকে ব্যবহারের জন্য দেওয়া হয়েছে। এর জন্য কোনো জায়গায় মিটিং মিছিল আটকে নেই। কার্যত পার্টি অফিসকে কন্ডাক্টরের অফিসে পরিণত করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল পটাশপুরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *